চাঞ্চল্যকর তথ্য! পেট্রোলের মূল্য হতে চলেছে ৩৪ টাকা প্রতি লিটার।

পেট্রোলের মূল্য হতে চলেছে ৩৪ টাকা প্রতি লিটার এমনটাই চাঞ্চল্যকর তথ্য কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে উঠে আসছে। দিন দিন বাড়তে থাকা পেট্রোলের মূল্য থেকে অনেকটাই রেহায় পাবে সাধারণ মানুষ। যদিও বর্তমানে পেট্রোলের মূল্য কিছুটা হলেও হ্রাস পেয়েছে যেখানে বিগত ১২ মাসে পেট্রোলের মূল্য প্রায় ৮৭ টাকায় পৌছে গিয়েছিল সেখানে এখন পেট্রোলের মূল্য নেমে ৭৩ টাকার কাছাকাছি দাঁড়িয়েছে।খবরে আসছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এই সিদ্ধান্তে মনোনীত হয়েছে। সাধারণ মানুষকে কেন্দ্র করে ডিজেল পেট্রোলের দাম কমানোর জন্য ট্যাক্স ও ডিলারের কমিশন বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্তের প্রস্তাব কেন্দ্রীয় কমিশন।

এই প্রস্তাব কার্যকরী হলে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বর্তমানে থেকে অনেকটাই কমে লিটার পিছু ৩৪ টাকায় এসে  দাঁড়াবে বলে দাবি করছে কেন্দ্রীয় সরকার। অর্থ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী শিব রতন শুক্লা লোকসভায় লিখিতভাবে জানিয়েছেন এমনটাই সূত্রের খবর আসছে । অর্থমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী জানিয়েছেন, পেট্রোল যে বাজারে বিক্রি হয় তার পিছু ৯৬.৬ শতাংশ কর এবং ডিলারের কমিশন যুক্ত রয়েছে । এবং ডিজেলের ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ কর আদায় করা হয়। মন্ত্রকের দাবি এই কোন কমিশন বাদ দিলে এক ধাক্কায় অনেকটা কমে যাবে ডিজেল ও পেট্রোলের মূল্য। এছাড়াও প্রতিমন্ত্রী এ বিষয়ে বলেছেন, আর্থিক গত বছরে কেন্দ্রীয় সরকার পেট্রোলের উপর ৭৩,৫১৬৮ কোটি টাকা  এবং ডিজেলের উপর  ১.৫ লক্ষ কোটি টাকা শুল্ক আদায় করেছিল।


শুধু তাই নয় আর্থিক চলতি বছরের গত ছয় মাসে ২৫,৩১৮ কোটি টাকার শুল্ক আদায় করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এবং ডিজেলের শুল্ক মিলেছে ৪৬,৫৪৮ কোটি টাকা।  গত অক্টোবর মাসে শুল্ক কমানোর কারণে জ্বালানির দাম ধীরে ধীরে কমতে দেখা গেছে । যদিও এ শুল্ক কমানোর ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের ৭,০০০ কোটি টাকার লোকসান দেখা গেছে। এমনটাও জানা গেছে ডিজেল ও পেট্রোলের জন্য এ প্রস্তাব কার্যকারী হলে ডিজেল পেট্রোলের দাম এক ধাপে অনেকটা কমলেও কেন্দ্রীয় সরকারের প্রচুর কোটি টাকা লোকসান হওয়ার আশঙ্কা দেখা যাচ্ছে। এই মুহূর্তে ডিজেলের দাম ছিল ৬৪ টাকা (নিউ দিল্লি) প্রতি লিটার পিছু যার মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের শুল্ক ছিল ১৩.৮০ টাকা এবং ভ্যাট ৯.৯১ টাকা ও ডিলারের কমিশন ২.৫০ টাকা । যদিও বর্তমানে ডিজেল ও পেট্রোলের মধ্যে মূল্য বাজার নিয়ন্ত্রণ নিয়ন্ত্রিত , তবুও একধাক্কায় যদি এতটা জ্বালানি দ্রব্যের দাম কমে তাহলে সাধারণ মানুষ অনেকটাই উপকৃত হবেন এবং এর ফলও লোকসভায় দেখা যাবে ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *